চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

শতবর্ষে বর্ধমান ডিস্ট্রিক্ট রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন # উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

বাড়িতে খননকার্য চলার সময় গুপ্তধন ধনের হদিশ



 

বাড়িতে খননকার্য চলার সময় গুপ্তধন ধনের হদিশ

অতনু ঘোষ, পূর্বস্থলি : কালনা মহকুমার পূর্বস্থলীর হামিদপুরের মন্ডলপাড়ায় মিললো গুপ্তধনের হদিশ। আর এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই স্থানীয় জনমানসে আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। শতাব্দী প্রাচীন একটি বাড়ির উঠোন খোড়াখুড়ির কাজ চলার সময় সেখানে মাটির তলা থেকে একটি পিতলের ঘটি পাওয়া। ঘটিত ভিতরে ছিল বিংশ শতাব্দীর প্রথম দিকের রৌপ্য মুদ্রা। এই মূলতঃ গুপ্তধন। কিন্তু বাতাসের গতিতে



খবর ছড়িয়ে পড়তেই কাতারে কাতারে মানুষ ভিড় করে ওই বাড়িতে। মুখে মুখে রটে গেল, গুপ্তধনের কথা। পিলপিল করে ছুটে আসতে থাকেন মানুষ। যদি শিকে ছেঁড়ে, যদি পাওয়া যায় কয়েকটা মোহর! এই ঘটনার জেরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায় এই গ্রামে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছায় পূর্বস্থলী থানার পুলিশ। 



উদ্ধার করা হয় গুপ্তধন ভর্তি পিতলের ঘটিকে। ওই ঘটি থেকে উদ্ধার হয় ৩৪ টি বড় ও তিনটি ছোট প্রাচীন রুপোর মুদ্রা। উদ্ধার হওয়া মুদ্রা গুলি ১৯০১ ও ১৯১৮ সালের পুরনো। সাজিদুল সেখ নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে খনন করার সময়ে ঘটি ভর্তি মুদ্রাগুলো উদ্ধার হয়। প্রাচীন বাড়িটি ভেঙে নতুন বাড়ি তৈরির পরিকল্পনা ছিল সাজিদুলের। সেই সময় রাজমিস্ত্রি ওই খনন কাজ করার সময় উদ্ধার হয় প্রাচীন মুদ্রা গুলি। তবে এই মুহূর্তে পুলিশের নির্দেশে খনন কার্য বন্ধ রয়েছে এবং পুলিশ বাড়িটিকে ঘিরে রেখেছে।

Post a Comment

0 Comments