চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

শতবর্ষে বর্ধমান ডিস্ট্রিক্ট রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশন # উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়সরকারি কর্মচারীদের সুখের দিন শেষ, শ্রম কোড চালু হতে চলেছে সমগ্র ভারতে পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #পূর্ব বর্ধমান জেলায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এর উদ্যোগে খালবিল ও চুনোমাছ উৎসবের উদ্বোধন ২৫ ডিসেম্বর

খন্ডঘোষে রাস্তা খানাখন্দে ভরা, ভোট বয়কটের ভাবনা


 

খন্ডঘোষে রাস্তা খানাখন্দে ভরা, ভোট বয়কটের ভাবনা



 ডেস্ক রিপোর্ট, সংবাদ প্রভাতী : সরকারি নথিপত্রে রাস্তার উল্লেখ আছে, কিন্তু দেখভালের কোনো ব্যবস্থা নেই। বাম-ডান সব জমানায় প্রশাসন নীরব দর্শক। কোনও কাল্পনিক গল্প কথা নয়। বাস্তবিক ঘটনা। পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসনের সদর কার্যালয় থেকে দূরত্বও খুব বেশি নয়‌। অথচ খানাখন্দে ভরা এই রাস্তা নিয়ে কারো কোনো হেলদোল নেই। 

পূর্ব বর্ধমান জেলার খন্ডঘোষ ব্লকের লোদনা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় রাস্তার অবস্থান। খন্ডঘোষ থেকে মাত্র ৩ কিলোমিটার উত্তরে প্রধানত বিচখাঁড়া, গোলা, নবগ্রাম, বনমালীপুর ও সানিঘাট এই গ্রামগুলোতে যাবার একমাত্র রাস্তা। পঞ্চায়েত সদস্য সহ চাকরিজীবী, ব্যবসায়ি, ছাত্র-ছাত্রী এবং সাধারণ মানুষের নিত্যদিনের চলাচলের একমাত্র রাস্তা। গোলার ঐতিহ্যবাহী ঠাকুরবৈরাগী আশ্রম যাবার এই রাস্তাই প্রধান ভরসা। দূরদূরান্ত থেকেও বহু ভক্ত এই আশ্রমে আসেন। এই রাস্তাটির গুরুত্ব কতটা সেটা বলার অপেক্ষা রাখে না। অথচ শীত, গ্রীষ্ম, বর্ষা সব ঋতুতেই রাস্তায় চলতে গিয়ে মানুষের দুর্ভোগের শেষ নেই।


 একটু বৃষ্টি হলেই রাস্তা না রোয়ার জমি বুঝে ওঠা দায়। বর্ষায় রাস্তায় চলাচল করতে গিয়ে মানুষের দুর্গতি সীমা ছাড়িয়ে যায়। অন্যসময় ধুলোতে অস্থির। তবুও রাস্তা চলতে হয়। এলাকার মানুষের অভিযোগ পঞ্চায়েত প্রধান, বিডিও, বিধায়ক থেকে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেও কোনো লাভ হয়নি। বিক্ষুব্ধদের অনেকেই বলছেন আগামী বিধানসভা নির্বাচনের আগে রাস্তা সংস্কারের কাজে হাত না দিলে তারা ভোট বয়কটের পথে যাবার ভাবনা চিন্তা করছেন।


Post a Comment

0 Comments