Scrooling

হাঁপানি ও অ্যালার্জিজনিত সমস্যায় ভুগছেন ? বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডাঃ অয়ন শিকদার আগামী ২৫ আগস্ট বর্ধমানে আসছেন। নাম লেখাতে যোগাযোগ 9734548484 অথবা 9434360442 # টি টোয়েন্টি ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট ২০২৪ : ভারতের বিশ্ব রেকর্ড, প্রথম থেকে শেষ সব ম্যাচে ভারতের জয় # কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন আউসগ্রামের বিউটি বেগম # নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রীসভায় পশ্চিমবঙ্গ থেকে শপথ নিলেন ডঃ সুকান্ত মজুমদার ও শান্তনু ঠাকুর # আঠারো তম লোকসভা ভোটের ফলাফল : মোট আসন ৫৪৩টি। NDA - 292, INDIA - 234, Others : 17 # পশ্চিমবঙ্গে ভোটের ফলাফল : তৃণমূল কংগ্রেস - ২৯, বিজেপি - ১২, কংগ্রেস - ১

আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস ও কিছু কথা

 

আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস ও কিছু কথা


 🔸 রাধামাধব মণ্ডল


  ➡️ আজ ৯ই আগস্ট আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস। বিশ্বের প্রান্তিক এই জনগোষ্ঠীর জীবন, জীবিকা সঙ্গে সঙ্গে তাঁদের সংস্কৃতির বৈচিত্র্যকে বাঁচিয়ে রাখতে, তাঁদের ভাষার চর্চাকে অব্যাহত রাখতে জাতিসংঘ কর্তৃক এই দিনটি গৃহীত হয়েছে আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস হিসেবে। এই দিনটিকে পালনের মধ্য দিয়ে, এই প্রান্তিক জনজাতিকে সম্মান জানানো হয়েছে। এই দিনটিকে একটি স্মরণীয় দিন হিসেবে চিহ্নিত করতে, লড়াই করেন বাংলার বরেণ্য সমাজকর্মী তথা সাহিত্যিক মহাশ্বেতা দেবী।

তাঁর একাধিক লেখায় উঠে এসেছে অরণ্যচারীদের জীবন যাপনের সংস্কৃতি। তাঁর অরণ্যের অধিকার, বীরষা মুণ্ডাকে নিয়ে লেখা অন্য জীবনের কাহিনি।

আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবসের মাধ্যমে, বিশ্বের আদিবাসী জনগোষ্ঠীর বিভিন্ন সমস্যার সমাধান, জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে আন্তর্জাতিক সহযোগিতা বৃদ্ধির জন্য জাতিসংঘ এবং আদিবাসী জাতি এক নতুন অংশীদারিত্ব শিরোনামে ১৯৯৩ সালকে আন্তর্জাতিক আদিবাসী বর্ষ ঘোষণা করা হয়। অরণ্যজীবী আদিবাসীদের অধিকার, মানবাধিকার, স্বাধীনতাসংক্রান্ত বিষয়সমূহ নিয়ে ১৯৮২ সালের ৯ই আগস্ট জাতিসংঘের আদিবাসী জনগোষ্ঠীবিষয়ক ওয়ার্কিং গ্রুপ-এর প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এই দিনটিকে স্মরণ করার জন্য জাতিসংঘ ১৯৯৪ সালের ২৩শে ডিসেম্বর দিনটিতে ৯ই আগস্টকে আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস হিসেবে ঘোষণা করে।

 পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের অবহেলিত, সুযোগবঞ্চিত আদিবাসী জাতিসমূহের সমস্যাগুলোর ওপর মনোযোগ আকর্ষণ করা এবং তাঁদের অধিকার রক্ষা করা, তাঁদের উন্নয়নের সুযোগ সৃষ্টি করার জন্যই এই দিনটি আজও পালিত হয়।

আজও এই অরণ্যচারীদের জন্য বহু গবেষক কাজ করে চলেছেন। গোটা দেশে, এই জনজাতির মানুষেরাই রয়েছেন আলোর বাইরে। দিন চিহ্নিত হয়েছে। সম্মান জানানো হয়েছে জাতিটিকে। কিন্তু আজও আলোকমালায় উজ্জ্বল হয়নি জাতিটির ভবিষ্যৎ। রাষ্ট্রের বঞ্চনায় এখনও এই দেশের আলো থেকে অনেক দূরে দাঁড়িয়ে রয়েছে আদিবাসীরা! ঝাড়খণ্ড রাজ্যে আদিবাসীদের জমি দখলে মদত দিচ্ছে সরকার। স্বাস্থ্য, চিকিৎসা ব্যবস্থার অন্ধকারে এখনও রয়েছে ঝাড়খণ্ড, উড়িষ্যার আদিবাসীরা। তবে আশার কথা শিক্ষার আলোকে, কর্মসংস্থানের লড়াইয়ে আসতে শুরু করেছে আমাদের দেশের আদিম জনজাতির মাটির দেবতারা।