Scrooling

নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রীসভায় পশ্চিমবঙ্গ থেকে শপথ নিলেন ডঃ সুকান্ত মজুমদার ও শান্তনু ঠাকুর # অ্যালার্জিজনিত সমস্যায় ভুগছেন ? বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডাঃ অয়ন শিকদার আগামী ২১ জুলাই বর্ধমানে আসছেন। নাম লেখাতে যোগাযোগ 9734548484 অথবা 9434360442 # আঠারো তম লোকসভা ভোটের ফলাফল : মোট আসন ৫৪৩টি। NDA - 292, INDIA - 234, Others : 17 # পশ্চিমবঙ্গে ভোটের ফলাফল : তৃণমূল কংগ্রেস - ২৯, বিজেপি - ১২, কংগ্রেস - ১

বিধায়কের হাত ধরে, আউশগ্রামে দলবদল

 

বিধায়কের হাত ধরে, আউশগ্রামে দলবদল


নিজস্ব সংবাদদাতা : পূর্ব বর্ধমান জেলায় আউশগ্রামের অমরপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার শ্রীচন্দ্রপুর গ্রামে, শুক্রবার বিকেলের এক সভায় শতাধিক বিজেপি পরিবারের ১৭০ জন বিজেপি কর্মী, সমর্থক, আঞ্চলিক স্তরের নেতারা এদিন অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করে।

অমরপুর অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেসের ডাকে অমরপুরের শ্রীচন্দ্রপুর গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে এই যোগদান সভার আয়োজনে ছিলেন আউশগ্রাম ২ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের কার্যকরি সভাপতি সেখ আব্দুল লালন ও অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি গোলাম মোল্লা।

আউশগ্রামের বিধায়ক অভেদানন্দ থান্দারের হাত ধরে এদিন আবারও একবার বিজেপিতে ভাঙ্গন। স্থানীয়সুত্রে খবর আউশগ্রামের জঙ্গল মহলের আউশগ্রাম ২ ব্লকের সাংগঠনিক সভায় যমুনাদিঘিতে অনুব্রত মণ্ডলের নির্দেশে ব্লক স্তরে সাংগঠনিক ভাবে রদবদল করা হয়। সেই সভায় কেষ্ট মোড়ল হঠাৎই আউশগ্রামের বিশিষ্ট সমাজসেবী সেখ আব্দুল লালনকে তুলে এনে সাংগঠনিক পদে বসান। আউশগ্রাম ২ ব্লকের কার্যকরি সভাপতির পদের দায়িত্ব দেন। তারপর থেকেই তার উদ্যোগেই একেরপর এক সভায় গ্রামে গ্রামে বিজেপি থেকে তৃণমূলে যোগদান শুরু হয়।

এদিনের শ্রীচন্দ্রপুর গ্রামের সভায় আবারও একবার বিজেপির ৫২ নম্বর জেড পি-তে ভাঙ্গন। যদিও এনিয়ে জানতে চাওয়া হলে বিজেপি মণ্ডল সভাপতি নিতাই বিশ্বাস বলেন,"খুব বেশি যোগদান করেনি। জনা চারেক গেছে, তৃণমূলে।"

স্থানীয়সুত্রে খবর আউশগ্রামের জঙ্গলমহলের অমরপুর গ্রামের শ্রীচন্দ্রপুর গ্রামের পার্থ সুত্রধর, দীনেশ সুত্রধর, কালিনাথ বাগ্দী, সহদেব ধীবর, রূপা বাগ্দী, বাপী আঁকুড়ে, শক্তিপদ আঁকুড়ে সহ আরও অনেকে এদিন বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করেছেন।

শ্রীচন্দ্রপুরের তৃণমূলের আয়োজনের এই যোগদানের সভায় এদিন উপস্থিত ছিলেন আউশগ্রাম ২ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি রামকৃষ্ণ ঘোষ, পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সৈয়দ হায়দার আলী, জেলা পরিষদ সদস্যা কাকলি রাজা, তৃণমূল নেতা সেখ আব্দুল লালন, গোলাম মোল্লা ও আউশগ্রামের বিধায়ক অভেদানন্দ থান্দার।

আউশগ্রামের বিধায়ক অভেদানন্দ থান্দারের হাত ধরে এদিন বিজেপি থেকে তৃণমূলে যোগদান করে। শুক্রবার বিকেলের এই সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে আউশগ্রাম ২ ব্লকের কার্যকরি সভাপতি সেখ আব্দুল লালন বলেন,"মা মাটি মানুষের এই সরকারের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার কাছে কোনো ভেদাভেদ নেই। সবার সমান অধিকার। তাই উন্নয়ন কাজের শরিক হতে প্রতিদিনই বহু মানুষ আসছেন আরও আসবেন। সকলকেই দলে সুস্বাগতম।" 

যদিও আউশগ্রাম ২ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি তথা জেলা পরিষদ সদস্য রামকৃষ্ণ ঘোষ বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন, "আগামীতে তৃণমূলই সরকার গড়বে। কোনো সংশয় নেই। নজরুল, রবীন্দ্রনাথের এই দেশকে জাতি দিয়ে ভাগ করা এতো সহজ নয়। এই আমাদের নিরন্ন মানুষকে নিয়েই, আগামীর লড়াইয়ে জিতবে তৃণমূল।"

তবে এদিনের সভায় আউশগ্রামের বিধায়ক অভেদানন্দ থান্দার বলেন,"আপনারা আমাকে যখন ডাকেন, তখনই আমি আপনাদের কাছে আসি। আমি তৃণমূল কংগ্রেসের একজন সৈনিক। যখন দল যা দায়িত্ব দেবে, তাই পালন করবো। আগামীতে আপনাদের অংশগ্রহণে দল আরও শক্তিশালী হবে। তৃণমূলে আরও মানুষ আসবেন। আগামীতে তাদের আরও স্বাগতম। "