চৈতন্য মহাপ্রভু'র নামে নব নির্মিত তোরণ উদ্বোধন কাটোয়ার দাঁইহাটে

উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের সেরা অদিশা দেবশর্মা, দশের মেধা তালিকায় ২৭২ জন # মাধ্যমিকে যুগ্ম প্রথম বর্ধমান সিএমএস হাই স্কুলের রৌনক মন্ডল এবং বাঁকুড়ার রাম হরিপুর রামকৃষ্ণ মিশনের অর্ণব ঘড়াই # আধার কার্ডের ফটোকপির অপব্যবহার রুখতে বিজ্ঞপ্তি জারি # ইউনেস্কো'র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজো # বাংলার চিকিৎসক উজ্জ্বল পোদ্দার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরার তালিকায়মাধ্যমিকের পর উচ্চমাধ্যমিকেও তাক লাগালো কাটোয়ার অভীক পশ্চিমবঙ্গে কোভিড বিধিনিষেধ প্রত্যাহার #১০০ দিনের কাজের বকেয়া টাকা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তৃণমূল কংগ্রেসের আন্দোলন

অনলাইনে পরিবেশ দিবস উদযাপনে বনবিবিতলা হাইস্কুলের নজীর


অনলাইনে পরিবেশ দিবস উদযাপনে 
বনবিবিতলা হাইস্কুলের নজীর

অতনু হাজরা, জামালপুর : করোনা সংকটে স্কুল বন্ধ।  ছাত্র-ছাত্রীরা নিজের বাড়িতেই গাছের চারা রোপনের মাধ্যমে পরিবেশ দিবস পালন করলো। কোনো গল্প কথা নয়। অভিনব এই ভাবনা পূর্ব বর্ধমান জেলার জামালপুরের বনবিবিতলা উচ্চ বিদ্যালয়ের। এই লক ডাউন সময়ে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উদযাপন করল তারা।


বনবিবিতলা উচ্চ বিদ্যালয়ের ইকো ক্লাবের কো- অডিনেটর তথা সহ শিক্ষক  সুদীপবাবু ও অন্যান্য শিক্ষক শিক্ষিকা বর্তমান ও প্রাক্তন ছাত্র ছাত্রীদের বাড়িতে বা বাড়ি সংলগ্ন অঞ্চলে বৃক্ষ রোপণ করতে উদ্বুদ্ধ করেন এবং সারা বছর সেই বৃক্ষ পরিচর্যা করতে বলেন। সেই মোতাবেক বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীরা বাড়িতেই একটি করে গাছ লাগায় এবং তার ছবি তুলে বিদ্যালয়ের নির্দিষ্ট নম্বরে পাঠায়।


সেই ভিডিও বা ছবি বিদ্যালয়ের ফেসবুক পেজে আপলোড করা হয়। অনলাইনে একটি ছোট্ট অনুষ্ঠানও করা হয় বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, শ্যামল কুমার রায় ও সহ শিক্ষক রতন চন্দ্র ধাড়া  বিশ্ব পরিবেশ দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরেন। প্রধান শিক্ষক, শ্যামল কুমার রায় জানান যে এই লক ডাউন সময়েও যেভাবে সকলের সাড়া পাওয়া যাচ্ছে তাতে বিদ্যালয়ের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের ও বৃহত্তর সমাজের নিবিড় সম্পর্কের ছবিই স্পষ্ট হয়।


এর আগেও লকডাউন সময়ে নানা অনুষ্ঠান তাঁরা অনলাইনের সাহায্যেই করেছেন। সর্বোপরি তাঁরা দীর্ঘ দিন ধরে অনলাইনের মাধ্যমেই ছাত্র ছাত্রীদের পঠন-পাঠনের কাজ করে যাচ্ছেন। শিক্ষা মহলের মতে বনবিবিতলা উচ্চ বিদ্যালয়ের  এই উদ্যোগ প্রশংসার দাবি রাখে।


Post a Comment

0 Comments